টলিউডের সুপারস্টার নায়িকা ও রাজ চক্রবর্তীর বউ! শুভশ্রী গাঙ্গুলির জীবনকাহিনী হার মানাবে সিনেমার গল্পকেও

0
3

বর্তমান এই যুগে সবার হাতেহাতে বিনোদন বলতে আমাদের মাথায় একটাই আধুনিক প্ল্যাটফর্মের কথা মনে পড়ে সেটি হল সোশ্যাল মিডিয়া। হ্যা এই সোশ্যাল মিডিয়াই এখন আমাদের বিনোদন খেলাধুলা, গানবাজনা, সিনেমা, খবরাখবর প্রভৃতি আরও অনেক কিছু উপভোগ করার বিপুল ব্যাবহৃত এবং সহজ মাধ্যম হয়ে উঠেছে।

ছোটো থেকে বড়ো প্রায় সবার হাতেই এখন এই মাধ্যমটি পৌঁছে গেছে।আধুনিক সমাজের বহু তরুণতরুণীর বহু প্রতিভা, খেলাধুলা এই মাধ্যমের মাধ্যমে সবার হাতেহাতে পৌঁছে গেছে এবং ফুটে উঠেছে। আধুনিক সমাজে প্রায় সবাই বিভিন্ন তথ্য, জ্ঞান, শিক্ষা, প্রযুক্তি গ্রহণ করতে এই মাধ্যমের উপর বিপুল ভাবে সক্রিয় বলা যেতে পারে।

বর্তমানে আধুনিকতার শিখরে এসে সব থেকে দ্রুত সাফল্য পাবার চাবিকাঠি হল এই সোশ্যাল মিডিয়া। প্রায় অনেকেই নিজের প্রতিভা তুলে ধরে রাতারাতি এক সাফল্যের শিখরে পৌঁছে স্টার হয়েছেন, হয়েছেন বহু মানুষের কাছে অনুপ্রেরণা।বর্তমানে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে জনপ্রিয় প্রথম সারির অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম হলেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়।

টলিউড খ্যাত পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন কয়েক বছর আগেই। তাদের একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে। নাম ইউভান। রাজ-শুভশ্রী পুত্র ইতিমধ্যেই খুদে তারকা হয়ে উঠেছে নেটদুনিয়ায়। তবে আজ ইউভানকে নিয়ে নয় কথা বলব শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়কে নিয়ে। বর্ধমান থেকে কলকাতায় এসে প্রথম সারির নায়িকা হয়ে ওঠার পথটা খুব একটা সহজ ছিলনা অভিনেত্রীর জন্য।

শুরু থেকেই অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন ছিল শুভশ্রীর। তাই বর্ধমান থেকে পাড়ি দিয়েছিলেন সুদূর কলকাতায়। বর্ধমান টু কলকাতা প্রায় রোজই যাতায়াত করতেন তিনি। ২০০৬ সালে প্রথম ‘আনন্দলোক নায়িকার খোঁজ’ জেতেন অভিনেত্রী। এটা ছিল অভিনেত্রী হওয়ার সফরে শুভশ্রীর প্রথম ধাপ।

২০০৮ সালে ওডিয়া ছবি ‘মাতে লা লাভ হেলারে’তে অভিনয়ের মাধ্যমে নিজের অভিনয় জীবন শুরু করেন অভিনেত্রী। সেইসময় শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় শুধুমাত্র নিজের মা ও দিদিকেই পাশে পেয়েছিলেন। তার বাড়িতে সকলেই চাকুরীজীবী ছিলেন।অতএব সেই পরিস্থিতিতে কেউই মেনে নিতে পারেননি তার এই সিদ্ধান্তের কথা।

তবে পরবর্তীকালে তার সাফল্য পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের মত পাল্টে দিয়েছিল।অডিশন দিতে দিতেই হঠাৎ একদিন ২০০৭ সালে প্রভাত রায়ের ছবি ‘পিতৃভূমি’তে জিতের বোনের চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পান। সেই ছবিতে জিতের বিপরীতে ছিলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। ২০০৮-এই ‘বাজিমাত’ ছবিতে সোহমের বিপরীতে নায়িকা হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেন শুভশ্রী।


সেই বছরেই শ্রেষ্ঠ নবাগতার পুরস্কারও জমা হয়েছিল তার ঝুলিতে।এরপর থেকে তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি, একের পর এক হিট সিনেমা দিয়ে গেছেন দর্শকদের। বর্তমানে তার অনুরাগীর সংখ্যা অসংখ্য। এই মুহূর্তে অভিনেত্রী জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় ডান্স রিয়্যালিটি শো ‘ডান্স বাংলা ডান্স’এ বিচারক আসনে রয়েছেন।

খুব শীঘ্রই অভিনেত্রীকে আবারও বড়পর্দায় দেখা যেতে চলেছে বলেই জানা গিয়েছে। সম্প্রতি সপ্তস্ব বসু পরিচালিত ও শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় অভিনীত ‘ড: বক্সী’ ছবিতে অভিনেত্রীর প্রথম লুক এবং ছবির ট্রেলার ইতিমধ্যেই মুক্তি পেয়েছে। ২০২২-এর ঈদে এই ছবির মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে বলেই জানা গিয়েছে। এছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি ছবিতে দেখা যাবে তাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here