Breaking News

ঘরের মধ্যে নিজের বউয়ের সাথে লুকিয়ে প্রেম! শশুরের কাছে ধরা পড়তে গিয়ে অল্পের জন্য রক্ষা পেল সৌজন্য গুনগুন

আজ আমরা যা আলোচনা করব তিনি হচ্ছেন একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তথা ব্লকবাস্টার ধারাবাহিকের নায়িকা। হ্যাঁ ঠিকই ধরেছেন আমি খরকুটো ধারাবাহিকের কথাই বলছি। তবে সম্প্রতি এই ধারাবাহিকে চলছে এক অভিনব ঘটনা।

ঘন্টাখানেক এরকম, প্রথম থেকেই পুচুসোনাকে নিয়ে তৈরি হয়েছিল নানান সমস্যা ! একদিকে গুনগুন, পুচুসোনার সোনা মা, সে তো কিছুতেই রাজি নয় পুচুসোনাকে কাছছাড়া করতে। পুচুসোনার জন্মের পরপরই বলতে গেলে বৌদি ভাইয়ের থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে গুনগুন।

এদিকে মিষ্টিও তার সন্তানকে গুনগুনের হাতে ছাড়বে কেন?বাড়ির সবথেকে খুদে সদস্যকে নিয়ে দুই বউয়ের রেষারেষিতে কার্যত টানটান উত্তেজনা চলছে ‘খড়কুটো’র (Khorkuto) মুখার্জি পরিবারে। বাড়িতে নবজাতকের আনন্দের খুশি কার্যত গুনগুনের কাণ্ডকারখানা নিয়ে দুশ্চিন্তার আড়ালেই চাপা পড়ে যাচ্ছে।

ঋজু-মিষ্টির প্রথম সন্তানের দেখাশোনার দায়িত্ব নিতে গিয়ে গুনগুন কার্যত ছোট্ট শিশুটিকে তার মায়ের থেকেই আলাদা করে ফেলছে! পরিবারের সদস্যদের কোনও বাধাই মানছে না সে। বুঝতে পারছেন অবস্থা মোটেই সুবিধার নয়।

পুচু সোনাকে তার মায়ের থেকে কেড়ে নিয়ে কতদিনই বা ভালো থাকবে গুনগুন? কোন কিছুই নিয়ে এত বাড়াবাড়ি কিন্তু ভালো না। এরমধ্যেই একদিন মিষ্টির সাথে কথা-কাটাকাটি বাঁধে গুনগুনের।  মিষ্টি সাফ গুনগুনকে জানিয়ে দেয় যতক্ষণ না সে নিজের মেয়েকে নিজের কাছে পুরোপুরিভাবে পাচ্ছে ততক্ষণ সে মেয়ে স্তন্যপান করাবে না, সেটাও যেন গুনগুনই বুঝে নেয়।


একথা মানতে নারাজ গুনগুন। তার দাবী মিষ্টি পুচুসোনাকে স্তন্যপান করাবে, আর তারপর পুচুকে গুনগুনের কাছেই থাকবে।গুনগুনের এই আজব দাবী আর অধিকারবোধ মিষ্টির মতোই অসহ্য হয়ে উঠছিল দর্শকদের কাছেও।

এদিকে মিষ্টি স্তন্যপান করাবে না বলায় পুচুসোনাকে কোলে নিয়েই তর্কাতর্কি শুরু করে গুনগুন আর তখনই তার হাত থেকে পড়ে যায় দুধের শিশুটি৷ ব্যথায় কেঁদে ওঠে একরত্তি। এরপরেই হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় পুচুসোনাকে।তাই শেষমেষ রাগারাগি করে গুনগুন বাড়ি ছেড়ে নিজের বাবার বাড়ি চলে যায়। ইতিমধ্যেই সিরিয়ালে এসেছে নতুন টুইস্ট। পুচুসোনাকে নিয়ে গুনগুনের সাথে পরিবারের সকলের মধ্যেে ভুল বোঝাবুঝির পর্বও মিটেছে। গুনগুন কে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে কাজ দিয়েছে পটকার টোটকা। এরপরেই দেখা গেছে শ্বশুরবাড়ি বাড়ি এসেই আবার আগের মেজাজে ফিরে এসেছে গুনগুন। এখন সৌগুনের সম্পর্কের বেশ কিছুটা অংশ জুড়ে রয়েছে লুকিয়ে প্রেম, খুনসুটি আর রোম্যান্স। আর বিবাহিত সৌগুনের লুকিয়ে প্রেম করা, ঘুরতে যাওয়া পুরো বিষয়টাই মুখার্জী পরিবারের পাশাপাশি চুটিয়ে উপভোগ করছেন দর্শকরাও। ক্রেজির সাথে প্রেম থেকে শুরু করে শ্বশুরবাড়িতে যাওয়া আসা সবটাই এখন ড্যাডির থেকে লুকিয়ে লুকিয়ে করতে হচ্ছে গুনগুনকে। আর নিজের বরের সাথে প্রেম করতে গিয়েই দুমদাম কেসও খেতে হচ্ছে বেচারা গুনগুনকে। আর সেই কারণেই সম্প্রতি রেস্টুরেন্টে গিয়েও ড্যাডির দেখে ভয়ের চোটে খালি পেটেই বাড়ি ফিরে আসতে হয়েছিল তাঁদের। বিষয়টা জানতে পেরে বাড়ির সবাই মিলে দারুণ খ্যাপাতে শুরু করে ওদের। ।এরপরেই দেখা যায় গুনগুনকে জড়িয়ে ধরে নিজের কাছে টেনে নেয় বাবিন। দুজনের মধ্যে তৈরি হওয়া সেই সুন্দর মুহুর্ত দেখে মন ভরে যায় ‘খড়কুটো’র দর্শকদ উল্লেখ্য, সহকারী পরিচালক হিসেবে ২০১৬ তে তৃণা নিজের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন টলিউডে। সেই সময় তাঁর ওজন কত ছিল জানেন? ৭২ কেজি। এই ফিগার নিয়ে টেলি দুনিয়ায় লিড ক্যারেক্টারে নো চান্স। তাই মাত্র ১৫ দিনে ৬ কেজি ওজন কমিয়ে প্রবেশ করলেন ‘খোকাবাবু’ সিরিয়ালের মধ্যে দিয়ে। পরবর্তীকালে অন্যান্য ধারাবাহিকে তাকে দেখা গেছে। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ভীষণ পরিমাণে ভাইরাল হয়ে যায়। কিছু লাইক ও কমেন্ট পড়েছে এই ভিডিওতে। তাছাড়া লাভ রিয়াক্ট এর বন্যা বয়ে গেছে ভিডিওতে।

Check Also

ঘ‍রে অসুস্থ বাবা, সংসারের দায়িত্ব নিজের কাঁধে নিয়ে বাবার ভ্যান গাড়ি চালাচ্ছে যুবতী, ঝড়ের গতিতে ভিডিও ভাইরাল

আধুনিক যুগে অন্যতম প্ল্যাটফর্ম বলতে সাধারণত মানুষ সোশ্যাল মিডিয়া কেই বুঝি। এই সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *